তোমার প্রিয় শিক্ষক

অথবা, আমার প্রিয় শিক্ষক

অথবা, তোমার প্রিয় মানুষ

(এই রচনাটি পঞ্চম শ্রেণীর উপযোগী করে রচিত।)

[ রচনা সংকেত: ভূমিকা; প্রিয় হওয়ার কারণ; যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা; পাঠদান পদ্ধতি; আমার জীবনে শিক্ষকের অবদান; বন্ধু হিসাবে; উপসংহার।]

ভূমিকা : ছাত্রজীবনে যাদের সাহচর্যে সবচেয়ে বেশি সময় কাটে, তাঁরা হলেন শিক্ষক। বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে কোনো কোনো শিক্ষক তাঁর পাঠদান পদ্ধতি, কথা বলার ধরন, মধুর ব্যবহার এবং ব্যক্তিত্ব ও আদর্শের কারণে ছাত্রদের কাছে অত্যন্ত প্রিয় হয়ে ওঠেন। তেমনি আমারও একজন প্রিয় শিক্ষক আছেন।

প্রিয় হওয়ার কারণ : আব্দুল জব্বার স্যার আমাদের বাংলা পড়ান। যেহেতু বাংলা আমাদের মাতৃভাষা, সেহেতু বাংলা স্যার আমার এত প্রিয়। জব্বার স্যারের কণ্ঠস্বর যেমন ভরাট তেমনি চমৎকার। তাঁর উচ্চারণ যেমন সুস্পষ্ট ও বিশুদ্ধ, হাতের লেখাও তেমনি সুন্দর। তিনি সদা হাস্যময়, কখনো কাউকে কঠোর শাস্তি দেন না। তাই তিনি আমার প্রিয় শিক্ষক। 

যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : আমার প্রিয় শিক্ষক জনাব আব্দুল জব্বার বাংলায় এমএ পাস। পাশাপাশি তিনি এম.এড. প্রশিক্ষণও গ্রহণ করেছেন। দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি এ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন।

পাঠদান পদ্ধতি : জব্বার স্যারের পাঠদান পদ্ধতি ভিন্ন ধরনের। তিনি প্রতিদিন যথাসময়ে ক্লাসে আসেন। ব্ল্যাকবোর্ড পরিষ্কার করে তাতে সেদিনকার পাঠ লেখেন। এরপর বাড়ির কাজ থাকলে তা আদায় করেন। তারপর আগের দিনের পড়া সম্পর্কে আলোচনা করেন। নতুন পড়া দিলে স্যার তা শ্রেণিকক্ষেই ভালোভাবে বুঝিয়ে দেন। নানা রকম উদাহরণ ও সরস আলোচনার মাধ্যমে অনেক কঠিন বিষয়কে সহজ করে বুঝিয়ে দেন। বাংলা বিষয়ে তিনি দুর্লভ জ্ঞানের অধিকারী। তিনি পাঠকে অত্যন্ত সহজভাবে উপস্থাপন করেন। ছাত্ররা মনোযোগ দিয়ে তাঁর পাঠ উপস্থাপনা শোনে। তিনি সহজ-সরল ভাষা প্রয়োগ করে অত্যন্ত চিত্তাকর্ষকভাবে পাঠ্য বিষয়ের ব্যাখ্যা প্রদান করেন। তাঁর সুস্পষ্ট এবং সহজ-সরল প্রকাশভঙ্গি ছাত্রদের আকর্ষণ করে এবং তারা নিজেদের দুর্বলতা বুঝে উঠতে পারে। তাঁর পিরিয়ডে সার্বিক শৃঙ্খলা বিরাজ করে; আর এটাই একজন শিক্ষকের সবচেয়ে বড় কৃতিত্ব।

আমার জীবনে শিক্ষকের অবদান : জব্বার স্যার একজন চরিত্রবান ও আদর্শ মানুষ। সুনাগরিক হিসেবে গড়ে ওঠার ব্যাপারে তিনি আমাদের সদুপদেশ দেন। আর এর জন্য প্রয়োজন সুস্বাস্থ্য এবং সচ্চরিত্র। তিনি আমাদের রীতিমতো শারীরিক ব্যায়ামের ব্যাপারে উৎসাহ দিয়ে থাকেন। তাঁর ভালো অভ্যাস, বিনম্র ব্যবহার এবং বাস্তবধর্মী আলোচনা আমাদের চরিত্র গঠনে বিশেষভাবে সহায়তা করে থাকে। এককথায়, একজন ভালো শিক্ষক এবং ভালো মানুষের সব সদ্‌গুণ তাঁর মধ্যে বিদ্যমান। যা আমাদের পরবর্তী জীবনকে প্রভাবিত করেছে একটি সুন্দর ভবিষ্যৎ গঠনের মাধ্যমে সুন্দর মানুষ হওয়ার লক্ষ্যে। এসব বিবেচনায় একজন ছাত্রের জীবনে শিক্ষকের অবদান অনস্বীকার্য।

বন্ধু হিসেবে : জব্বার স্যার আমাদের সকলের নিকট একজন বন্ধুর মতো। তবে নীতির প্রশ্নে তিনি আপোসহীন। তাঁর পড়া কেউ ফাঁকি দিতে পারে না। ছাত্রদের অসুখ-বিসুখে জব্বার স্যার উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন এবং সবসময় খোঁজ-খবর রাখেন। আমার টিউমার অপারেশনের সময় হাসপাতালে তিনি আমাকে দেখতে গিয়েছিলেন। তখন আমার যে কী ভালো লেগেছিল, তা কোনোদিন ভুলতে পারব না।

উপসংহার : স্কুলের সকল স্যারকেই আমি শ্রদ্ধা করি। তবে জব্বার স্যারের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা একটু বেশি। আমি সারাজীবন তাঁর আদর্শ অনুসরণ করে চলতে চেষ্টা করব।

Rate this post