বাংলাদেশের উৎসব 

বাংলাদেশ প্রায় সারা বছরই উৎসব-আনন্দে মুখর থাকে। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন উপলক্ষে উৎসব পালনের মধ্য দিয়ে এদেশের মানুষ। বারবার প্রাণচঞ্চল হয়ে ওঠে। ফলে দুঃখ-দৈন্য, হতাশা-নৈরাশ্য তাদের কখনাে কাবু করতে পারে না। বাংলাদেশের উৎসবগুলাের মধ্যে রয়েছে সামাজিক, পারিবারিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় ও জাতীয় উৎসব। সামাজিক উৎসবের মধ্য দিয়ে মানুষের সামাজিক সম্প্রীতি ও হৃদ্যতার পরিচয় প্রকাশ পায়। পারিবারিক উৎসবগুলােও মূলত, সামাজিক উৎসবেরই নামান্তর। বিয়ে-সাদী, জন্মদিন প্রভৃতি। উপলক্ষে যে উৎসব বা অনুষ্ঠান পালিত হয় তা কখনাে একটি পরিবারের গণ্ডিতে সীমাবদ্ধ থাকে না। ফলে এসব উৎসব বিভিন্ন। সম্প্রদায়ের মানুষের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে সামাজিক উৎসবের রূপ পরিগ্রহ করে। নবান্ন উৎসবও একান্ত পারিবারিক উৎসব নয়। কারণ এ উৎসবেও বন্ধুস্থানীয় পাড়া-প্রতিবেশীদের আমন্ত্রণ করা হয়। ঈদ, দুর্গাপূজা, বড়ােদিন ও বৌদ্ধ পূর্ণিমা প্রভৃতি বাংলাদেশের। মানুষের ধর্মীয় উৎসব হিসাবে পরিচিত। মুসলমান, হিন্দু, খ্রিষ্টান ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লােকেরা নিজ নিজ ধর্মীয় বিধান অনুযায়ী এসব। উৎসব পালন করে। বাংলা নববর্ষের উত্সব বাংলাদেশের সকল মানুষের উৎসব। দেশের সকল সম্প্রদায়ের লােকেরা ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে নববর্ষের উৎসব পালনের মধ্য দিয়ে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের পরিচয় ফুটিয়ে তােলে। রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী, নজরুল জন্মজয়ন্তী সহ আমাদের এমন কিছু উৎসব রয়েছে যা এদেশের সকল সম্প্রদায়ের শিক্ষিত মানুষেরা সােৎসাহে পালন করে থাকে। এছাড়া বাংলাদেশের মানুষ পরম আনন্দে পালন করে স্বাধীনতা দিবস ও বিজয় দিবসসহ বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় উৎসব। বিভিন্ন উৎসব পালনের মধ্য দিয়ে আমরা সারা বছর বাংলাদেশকে আনন্দমুখর করে রাখি।

Rate this post