Hello,

Sign up to join our community!

Welcome Back,

Please sign in to your account!

Forgot Password,

Lost your password? Please enter your email address. You will receive a link and will create a new password via email.

Ask A Question

Please type your username.

Please type your E-Mail.

Please choose an appropriate title for the question so it can be answered easily.

Please choose the appropriate section so the question can be searched easily.

Please choose suitable Keywords Ex: question, poll.

Type the description thoroughly and in details.

Please briefly explain why you feel this question should be reported.

Please briefly explain why you feel this answer should be reported.

Please briefly explain why you feel this user should be reported.

প্রশ্ন করা অধিকার, উত্তর দেওয়া দায়িত্ব।

Ask A Question
What's your question?
  1. চিম্বুক পাহাড়কে 'পাহাড়ের রাণী' বলা হয়।  বান্দরবান জেলা শহর থেকে ২৬ কিলোমিটার দূরে চিম্বুক পাহাড়ের অবস্থান। সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা প্রায় ২৫০০ শত ফুট। চিম্বুক যাওয়ার রাস্তার দুই পাশের পাহাড়ী দৃশ্য খুবই মনোরম। চিম্বুকে যাওয়ার পথে সাঙ্গু নদী আপনার ভ্রমণকে আরও বেশি আকর্ষণীয় ও নান্দনিক করে তুলেবে। পRead more

    চিম্বুক পাহাড়কে ‘পাহাড়ের রাণী’ বলা হয়। 

    বান্দরবান জেলা শহর থেকে ২৬ কিলোমিটার দূরে চিম্বুক পাহাড়ের অবস্থান।

    সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা প্রায় ২৫০০ শত ফুট। চিম্বুক যাওয়ার রাস্তার দুই পাশের পাহাড়ী দৃশ্য খুবই মনোরম। চিম্বুকে যাওয়ার পথে সাঙ্গু নদী আপনার ভ্রমণকে আরও বেশি আকর্ষণীয় ও নান্দনিক করে তুলেবে।

    পাহাড়ের মাঝে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সড়ক দিয়ে এঁকেবেঁকে যাওয়ার সময় মনে হবে গাড়িতে করে বুঝি চাঁদের বুকে পাড়ি জমাচ্ছেন। ২৫০০ ফুট উঁচুতে দাঁড়িয়ে এ অপরূপ বিচিত্র প্রাকৃতিক দৃশ্য দেখতে পাবেন চিম্বুকে।

    See less
  2. 'বাঘের দুধ বা চোখ' বাগধারাটির অর্থ - অসম্ভব বস্তু  বা দুঃসাধ্য বস্তু।  বাঘের দুধ / চোখ: বাঘ স্তন্যপায়ী প্রাণী। ওরা ডিম পাড়ে না, বাচ্চা প্রসব করে। আর বাচ্চা বাঘ ছোটবেলায় মায়ের বুকের দুধ খায়। কিন্তু সেই দুধ সংগ্রহ করা মানুষের পক্ষে এক রকম অসম্ভব। তেমনি অসম্ভব বাঘের চোখ সংগ্রহ করা। তাই দুষ্প্রাপ্য বস্তRead more

    ‘বাঘের দুধ বা চোখ’ বাগধারাটির অর্থ – অসম্ভব বস্তু  বা দুঃসাধ্য বস্তু। 

    বাঘের দুধ / চোখ: বাঘ স্তন্যপায়ী প্রাণী। ওরা ডিম পাড়ে নাবাচ্চা প্রসব করে। আর বাচ্চা বাঘ ছোটবেলায় মায়ের বুকের দুধ খায়। কিন্তু সেই দুধ সংগ্রহ করা মানুষের পক্ষে এক রকম অসম্ভব। তেমনি অসম্ভব বাঘের চোখ সংগ্রহ করা। তাই দুষ্প্রাপ্য বস্তু বা দুঃসাধ্য কাজ বোঝাতে এই বাগধারা ব্যবহার করা হয়

    See less
  3. তুমি সুন্দর তাই চেয়ে থাকি প্রিয় সে কি মোর অপরাধ - কাজী নজরুল ইসলাম। তুমি সুন্দর, তাই চেয়ে থাকি প্রিয়, সে কি মোর অপরাধ? চাঁদের হেরিয়া কাঁদে চকোরিণী, বলে না তো কিছু চাঁদ॥ চেয়ে চেয়ে দেখি ফোটে যবে ফুল ফুল বলে না তো সে আমার ভুল মেঘ হেরি ঝুরে চাতকিনি, মেঘ করে না তো প্রতিবাদ॥ জানে সূর্যেরে পাবে না, তবুওRead more

    তুমি সুন্দর তাই চেয়ে থাকি প্রিয় সে কি মোর অপরাধ – কাজী নজরুল ইসলাম

    তুমি সুন্দর, তাই চেয়ে থাকি প্রিয়, সে কি মোর অপরাধ?
    চাঁদের হেরিয়া কাঁদে চকোরিণী, বলে না তো কিছু চাঁদ॥
    চেয়ে চেয়ে দেখি ফোটে যবে ফুল
    ফুল বলে না তো সে আমার ভুল
    মেঘ হেরি ঝুরে চাতকিনি, মেঘ করে না তো প্রতিবাদ॥
    জানে সূর্যেরে পাবে না, তবুও অবুঝ সূর্যমুখী
    চেয়ে চেয়ে দেখে তার দেবতাকে, দেখিয়াই সে যে সুখী॥
    হেরিতে তোমার রূপ মনোহর
    পেয়েছি এ আঁখি, ওগো সুন্দর
    মিটিতে দাও হে প্রিয়তম মোর
    নয়নের সেই সাধ॥

    See less
  4. ব্যারিস্টার একটা ডিগ্রি অন্য দিকে ম্যাজিস্ট্রেট একজন সরকারি কর্মকর্তা। আবার ম্যাজিস্ট্রেট দুই ধরনের। ১. নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। ২. জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট।   আরও সহজ করে বলছি,,অনার্স / বিএ যেমন একটি ডিগ্রি, ব্যারিস্টারও তেমনি একটা ডিগ্রি। তবে এটি "ল" প্রফেশনের ডিগ্রি লাইক এলএলবি।   ★ দেশীয়Read more

    ব্যারিস্টার একটা ডিগ্রি অন্য দিকে ম্যাজিস্ট্রেট একজন সরকারি কর্মকর্তা। আবার ম্যাজিস্ট্রেট দুই ধরনের।

    ১. নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

    ২. জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট।

     

    আরও সহজ করে বলছি,,অনার্স / বিএ যেমন একটি ডিগ্রি, ব্যারিস্টারও তেমনি একটা ডিগ্রি। তবে এটি “ল” প্রফেশনের ডিগ্রি লাইক এলএলবি।

     

    ★ দেশীয় আইন নিয়ে যারা পড়াশোনা করে তারা এলএলবি পড়ে, আর যারা ব্রিটিশ আইন নিয়ে পড়ে তাদের ব্যারিস্টার বলে।

     

    তবে মনে রাখতে হবে,, এলএলবি / ব্যারিস্টারি যাই পড়ুক না কেনো, কোর্টে প্র‍্যাক্টিস করার জন্য দুজনকেই বার কাউন্সিল পাশ করা লাগে। না হলে তারা নরমাল অনার্স পাশের মতো হয়ে থাকে।

     

    ★ এবার আসি ম্যাজিস্ট্রেটের কথা—

     

    বিসিএস (BCS) দিয়ে যে ম্যাজিস্ট্রেট হয় তাকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলে।

     

    অন্য দিকে বিজেএস (BJS) দিয়ে যারা ম্যাজিস্ট্রেট হয় তাদের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বলে।

     

    নোট: দুই ম্যাজিস্ট্রেটের মধ্যে ক্ষমতা ও সম্মানের দিক দিয়ে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট উপরে। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৬ গ্রেডের অন্য দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ৯ম গ্রেডের। মানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এর জয়েনিং এর লেভেলে আসতে হলেও কম পক্ষ্যে ১০ বছর অপেক্ষা করতে হবে।

     

    উল্লেখ্য, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এবং বার কাউন্সিল এক্সাম একমাত্র এলএলবি / ব্যারিস্টারি পড়া ব্যক্তিরাই দিতে পারে, আর কেউ না।

     

    জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর কর্মক্ষেত্র, ক্ষমতা, নিয়োগ পদ্ধতি ও অন্যান্য সকল বিষয় আলাদা। এটি অনেক বিস্তৃত বিষয়।

    ধন্যবাদ।

    See less
  5. উত্তরঃ অপাদান কারকে ৬ষ্ঠী । যা থেকে কিছু বিচ্যুত , গৃহীত, জাত , বিরত, আরম্ভ, দূরীভূত ও রক্ষিত হয় এবং যা দেখে কেউ ভীত হয়, তাকেই অপাদান কারক বলে । অপাদান কারকে বিভিন্ন বিভক্তি ছাড়াও হইতে, হতে, থেকে, দিয়া, দিয়ে, ইত্যাদি অনুসর্গ ব্যবহৃত হয়। বিভিন্ন বিভক্তির প্রয়োগ ক) প্রথমা বা শূন্য বা অ বিভক্তিঃ 'বোঁটাRead more

    উত্তরঃ অপাদান কারকে ৬ষ্ঠী ।

    যা থেকে কিছু বিচ্যুত , গৃহীত, জাত , বিরত, আরম্ভ, দূরীভূত  রক্ষিত হয় এবং যা দেখে কেউ ভীত হয়, তাকেই অপাদান কারক বলে  অপাদান কারকে বিভিন্ন বিভক্তি ছাড়াও হইতে, হতে, থেকে, দিয়া, দিয়ে, ইত্যাদি অনুসর্গ ব্যবহৃত হয়। বিভিন্ন বিভক্তির প্রয়োগ

    ক) প্রথমা বা শূন্য বা  বিভক্তিঃ ‘বোঁটা  আলগা ফল গাছে থাকে না  ‘ ‘মনে পড়ে সেই জৈষ্ঠের দুপুরে পাঠশালা পলায়ন। 
    খ) দ্বিতীয়া বা কে বিভক্তি – বাবাকে বড্ড ভয় পাই।
    গ) ষষ্ঠী বা এর বিভক্তি  যেখানে বাঘের ভয় সেখানে সন্ধ্যে হয়।
    ঘ) সপ্তমী বা  বিভক্তি – “বিপদে মোরে করিবে ত্রাণ,  নহে মোর প্রার্থনা। “লোকমুখে শুনেছি। তিলে তৈল হয়।

     বিভক্তি  টাকায় টাকা হয়।

    See less
  6. যেখানে বাঘের ভয় সেখানেই সন্ধ্যা হয়' বাক্যটি গঠন অনুসারে - জটিল বাক্য । জটিল বাক্য : যে বাক্যে একটি স্বাধীন বাক্য এবং এক বা একাধিক অধীন বাক্য পরস্পর সাপেক্ষভাবে ব্যবহূত হয়, তাকে জটিল বাক্য বা মিশ্র বাক্য বলে। যেমন: যিনি পরের উপকার করেন, তাঁকে সবাই শ্রদ্ধা করে। কোথাও পথ না পেয়ে তোমার কাছে এসেছি।

    যেখানে বাঘের ভয় সেখানেই সন্ধ্যা হয়’ বাক্যটি গঠন অনুসারে – জটিল বাক্য

    জটিল বাক্য : যে বাক্যে একটি স্বাধীন বাক্য এবং এক বা একাধিক অধীন বাক্য পরস্পর সাপেক্ষভাবে ব্যবহূত হয়, তাকে জটিল বাক্য বা মিশ্র বাক্য বলে। যেমন: যিনি পরের উপকার করেন, তাঁকে সবাই শ্রদ্ধা করে। কোথাও পথ না পেয়ে তোমার কাছে এসেছি।

    See less
  7. যেখানে বাঘের ভয় সেখানে সন্ধ্যা হয় প্রবাদটির অর্থ কোনো বিপদ এড়াতে চাইলেও সেই বিপদের সামনে পড়া। "যেখানে বাঘের ভয় সেখানে সন্ধ্যা হয়" একটি প্রবাদ বা লোকবাক্য যা অর্থ হলো, যেখানে কোনো খুব ভীষণ বা ভয়াবহ পরিস্থিতি বা ব্যক্তি আছে সেখানে সমস্যা হয় বা সুখের পর দুঃখ হয়। এই প্রবাদটি প্রায় একই মানে নিযRead more

    যেখানে বাঘের ভয় সেখানে সন্ধ্যা হয় প্রবাদটির অর্থ কোনো বিপদ এড়াতে চাইলেও সেই বিপদের সামনে পড়া।

    “যেখানে বাঘের ভয় সেখানে সন্ধ্যা হয়” একটি প্রবাদ বা লোকবাক্য যা অর্থ হলো, যেখানে কোনো খুব ভীষণ বা ভয়াবহ পরিস্থিতি বা ব্যক্তি আছে সেখানে সমস্যা হয় বা সুখের পর দুঃখ হয়। এই প্রবাদটি প্রায় একই মানে নিয়ে অনেক প্রবাদ ও লোকবাক্যের সম্পর্কে জানা হয়।

    এই প্রবাদে বাঘ হলো সেই ভয়াবহ প্রাণী যা মানুষদের জন্য বিপদের জনক হতে পারে। একইভাবে যেখানে সমস্যা বা বিপদের ভীষণ পরিস্থিতি থাকে সেখানে সন্ধ্যা হয়ে যায়। অর্থাত্ সেখানে আশা এবং উজ্জ্বলতা জাগৃত হয় যা সমস্যা বা বিপদ অবদান রাখতে সাহায্য করে।

    যেমনঃ-

    কোনো ব্যক্তি দিনের বেলা চলছিলেন । তিনি চাইছিলেন দিন থাকতেই বন পার হয়ে যেতে, রাতে বাঘের উপদ্রব হতে পারে। কিন্তু সন্ধ্যার সময় বনের কাছেই পৌঁছন। তখন এই উক্তি করেন।

     

    See less
  8. বিষাক্ত সাপের বিষে হাতিসহ অন্যান্য প্রাণী মারা গেলেও কয়েকটি প্রাণী আছে যারা সাপের বিষে মরে না। এমন একটি প্রাণীর নাম ঘোড়া। সাপের কামড়ে ঘোড়া মরে না। সর্বোচ্চ তিনদিন অসুস্থ থাকে, তারপর সুস্থ হয়ে যায়। ঘোড়া থেকে আসে পৃথিবীর সব সাপের বিষের প্রতিষেধক anti venom । পৃথিবীতে খুব অল্প সংখ্যক প্রাণী নিজের শRead more

    বিষাক্ত সাপের বিষে হাতিসহ অন্যান্য প্রাণী মারা গেলেও কয়েকটি প্রাণী আছে যারা সাপের বিষে মরে না। এমন একটি প্রাণীর নাম ঘোড়া। সাপের কামড়ে ঘোড়া মরে না। সর্বোচ্চ তিনদিন অসুস্থ থাকে, তারপর সুস্থ হয়ে যায়।

    ঘোড়া থেকে আসে পৃথিবীর সব সাপের বিষের প্রতিষেধক anti venom । পৃথিবীতে খুব অল্প সংখ্যক প্রাণী নিজের শরীরে সাপের বিষ প্রতিরোধের ওষুধ তৈরি করতে পারে। যেমন:বেজি, উট, ঘোড়া, হাঙ্গর।

    একটি সাপের, ধরুন, কিং কোবরা’র anti venom তৈরি করতে হলে যা করতে হয় তা হলো, ওই সাপের বিষ ঘোড়ার শরীরে ঢুকিয়ে দিতে হয়।

    প্রচুর পরিমাণ ঢোকালেও সমস্যা নেই। ঘোড়ার কিছু হবে না। কিছু হবে না বলতে, ঘোড়া মরবে না। তবে ঘোড়া তিনদিন অসুস্থ থাকবে। এরপর সুস্থ হয়ে যাবে। এই তিনদিনে ঘোড়ার রক্তে ওই সাপের বিষের anti venom তৈরি হয়ে যাবে।

    ঘোড়ার শরীর থেকে রক্ত নিয়ে তার লাল অংশ আলাদা করা হয়। সাদা অংশ অর্থাত্‍ ম্যাট্রিক্স থেকে অ্যান্টি ভেনাম আলাদা করা হয়। ঘোড়া বেশ স্বাস্থ্যবান এবং অনেক রক্ত থাকে বলে, বেশ ভালো পরিমাণে রক্ত নিলেও (গড়ে প্রতি ঘোড়া থেকে প্রায় ৬ লিটার রক্ত নেওয়া হয়) ঘোড়ার তেমন ক্ষতি হয় না। এখন এই এন্টি ভেনমের শুদ্ধিকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে তাকে শিশিতে ভরে বাজারে সরবরাহ করা হয়।

    চিকেন পক্সের এন্টিবডি এবং সাপের বিষের এন্টি ভেনমের মূলনীতি প্রায় একই। চিকেন পক্সের ক্ষেত্রে এন্টিবডি তৈরি করে আমাদের শরীর। আর সাপের বিষের ক্ষেত্রে সেটি তৈরি হয় ঘোড়ার শরীরে। এই এন্টি ভেনম সাপে কাটা রোগীর শরীরে ইনজেকশন করলে এন্টি ভেনম শরীরে থাকা ভেনমকে অকার্যকর করে রোগীর জীবন বাঁচায়।

    See less
  9. ফটক হিন্দি ভাষার শব্দ এবং ফটক এর ইংরেজি শব্দ The Gate.

    ফটক হিন্দি ভাষার শব্দ

    এবং ফটক এর ইংরেজি শব্দ The Gate.

    See less
  10. বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয় সিলেটের লালখানে।  সিলেটে বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ৪১৮০ মিমি, মেঘালয় মালভূমির পাদদেশ সংলগ্ন সুনামগঞ্জে এর পরিমাণ ৫৩৩০ মিমি এবং লালাখাল (জৈন্তিয়াপুর উপজেলা) নামক স্থানে ৬৪০০ মিমি। বাংলাদেশে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ঘটে থাকে এই লালাখালে। এবং সবচেয়ে কম বৃষ্টিপাত নRead more

    বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয় সিলেটের লালখানে। 

    সিলেটে বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ৪১৮০ মিমি, মেঘালয় মালভূমির পাদদেশ সংলগ্ন সুনামগঞ্জে এর পরিমাণ ৫৩৩০ মিমি এবং লালাখাল (জৈন্তিয়াপুর উপজেলা) নামক স্থানে ৬৪০০ মিমি। বাংলাদেশে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ঘটে থাকে এই লালাখালে।

    এবং সবচেয়ে কম বৃষ্টিপাত নাটোরের লালপুর

    See less

Latest News & Updates

  1. চিম্বুক পাহাড়কে 'পাহাড়ের রাণী' বলা হয়।  বান্দরবান জেলা শহর থেকে ২৬ কিলোমিটার দূরে চিম্বুক পাহাড়ের অবস্থান। সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা প্রায় ২৫০০ শত ফুট। চিম্বুক যাওয়ার রাস্তার দুই পাশের পাহাড়ী দৃশ্য খুবই মনোরম। চিম্বুকে যাওয়ার পথে সাঙ্গু নদী আপনার ভ্রমণকে আরও বেশি আকর্ষণীয় ও নান্দনিক করে তুলেবে। পRead more

    চিম্বুক পাহাড়কে ‘পাহাড়ের রাণী’ বলা হয়। 

    বান্দরবান জেলা শহর থেকে ২৬ কিলোমিটার দূরে চিম্বুক পাহাড়ের অবস্থান।

    সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা প্রায় ২৫০০ শত ফুট। চিম্বুক যাওয়ার রাস্তার দুই পাশের পাহাড়ী দৃশ্য খুবই মনোরম। চিম্বুকে যাওয়ার পথে সাঙ্গু নদী আপনার ভ্রমণকে আরও বেশি আকর্ষণীয় ও নান্দনিক করে তুলেবে।

    পাহাড়ের মাঝে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সড়ক দিয়ে এঁকেবেঁকে যাওয়ার সময় মনে হবে গাড়িতে করে বুঝি চাঁদের বুকে পাড়ি জমাচ্ছেন। ২৫০০ ফুট উঁচুতে দাঁড়িয়ে এ অপরূপ বিচিত্র প্রাকৃতিক দৃশ্য দেখতে পাবেন চিম্বুকে।

    See less
  2. 'বাঘের দুধ বা চোখ' বাগধারাটির অর্থ - অসম্ভব বস্তু  বা দুঃসাধ্য বস্তু।  বাঘের দুধ / চোখ: বাঘ স্তন্যপায়ী প্রাণী। ওরা ডিম পাড়ে না, বাচ্চা প্রসব করে। আর বাচ্চা বাঘ ছোটবেলায় মায়ের বুকের দুধ খায়। কিন্তু সেই দুধ সংগ্রহ করা মানুষের পক্ষে এক রকম অসম্ভব। তেমনি অসম্ভব বাঘের চোখ সংগ্রহ করা। তাই দুষ্প্রাপ্য বস্তRead more

    ‘বাঘের দুধ বা চোখ’ বাগধারাটির অর্থ – অসম্ভব বস্তু  বা দুঃসাধ্য বস্তু। 

    বাঘের দুধ / চোখ: বাঘ স্তন্যপায়ী প্রাণী। ওরা ডিম পাড়ে নাবাচ্চা প্রসব করে। আর বাচ্চা বাঘ ছোটবেলায় মায়ের বুকের দুধ খায়। কিন্তু সেই দুধ সংগ্রহ করা মানুষের পক্ষে এক রকম অসম্ভব। তেমনি অসম্ভব বাঘের চোখ সংগ্রহ করা। তাই দুষ্প্রাপ্য বস্তু বা দুঃসাধ্য কাজ বোঝাতে এই বাগধারা ব্যবহার করা হয়

    See less
  3. তুমি সুন্দর তাই চেয়ে থাকি প্রিয় সে কি মোর অপরাধ - কাজী নজরুল ইসলাম। তুমি সুন্দর, তাই চেয়ে থাকি প্রিয়, সে কি মোর অপরাধ? চাঁদের হেরিয়া কাঁদে চকোরিণী, বলে না তো কিছু চাঁদ॥ চেয়ে চেয়ে দেখি ফোটে যবে ফুল ফুল বলে না তো সে আমার ভুল মেঘ হেরি ঝুরে চাতকিনি, মেঘ করে না তো প্রতিবাদ॥ জানে সূর্যেরে পাবে না, তবুওRead more

    তুমি সুন্দর তাই চেয়ে থাকি প্রিয় সে কি মোর অপরাধ – কাজী নজরুল ইসলাম

    তুমি সুন্দর, তাই চেয়ে থাকি প্রিয়, সে কি মোর অপরাধ?
    চাঁদের হেরিয়া কাঁদে চকোরিণী, বলে না তো কিছু চাঁদ॥
    চেয়ে চেয়ে দেখি ফোটে যবে ফুল
    ফুল বলে না তো সে আমার ভুল
    মেঘ হেরি ঝুরে চাতকিনি, মেঘ করে না তো প্রতিবাদ॥
    জানে সূর্যেরে পাবে না, তবুও অবুঝ সূর্যমুখী
    চেয়ে চেয়ে দেখে তার দেবতাকে, দেখিয়াই সে যে সুখী॥
    হেরিতে তোমার রূপ মনোহর
    পেয়েছি এ আঁখি, ওগো সুন্দর
    মিটিতে দাও হে প্রিয়তম মোর
    নয়নের সেই সাধ॥

    See less
Explore Our Blog